Home : Sonaly Khobor : করোনার কারণে লুটপাট ঠেকাতে যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক কেনার হিড়িক

করোনার কারণে লুটপাট ঠেকাতে যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক কেনার হিড়িক

করোনা মহামা’রীর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে অ’স্ত্র ও গো’লাবা’রুদ কেনার হি’ড়িক পড়েছে। অ’স্ত্র কিনতে দোকানের সামনে ক্রেতাদের দীর্ঘ লাইন পড়ছে প্রতিনিয়ত। কারণ হিসেবে ক্রেতারা বলছেন, করোনার প্রা’দুর্ভাবে ব্যবসা-বাণিজ্য বন্ধ করতে বাধ্য করা হচ্ছে। ফলে লুটে’রাদের উৎপাত বাড়বে। তাই নিজেদের নিরা’পত্তার স্বার্থে অ’স্ত্র কিনে রাখছেন তারা।

সরবরাহ কম থাকায় কিছু খুচরা বিক্রেতা সেভাবে অ’স্ত্র বিক্রি করছেন না। এ কারণে দোকানের সামনে লাইনে দাঁড়িয়ে কেনার পাশাপাশি অনলাইনেও অর্ডার দিয়ে অ’স্ত্র কিনছেন অনেকে। চলতি মাসের শুরু থেকেই অস্ত্র কেনাকাটা বেড়ে গেছে। ইউএসএ টুডে’র এক প্রতিবেদনে এ খবর জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ক্যালিফোর্নিয়ার কালভার সিটিতে মার্টিন রেটিং গানস নামের এক অ’স্ত্রের দোকান খোলার আগেই বাইরে দীর্ঘ লাইনে অপেক্ষা করছেন ক্রেতারা। লস অ্যাঞ্জেলসের বাসিন্দা ড্রিউ প্লোটকিন বলেন, সবাই ভ’য় পাচ্ছে। সারা বিশ্বের মানুষ আত’ঙ্কে রয়েছে। এ রকম বাজে পরি’স্থিতি থেকে নিজেদের র’ক্ষা করতে চাইছে সবাই।

এদিকে লকডাউনের মধ্যে চরম অস্থি’তিশীল হয়ে উঠেছে ইতালি। দেখা দিয়েছে চ’রম দারিদ্র্য ও দুর্ভিক্ষ। অভাবের তাড়নায় দিশে’হারা জনগণ। লুট’পাট শুরু হয়ে গেছে দেশটির অনুন্নত অংশ সিসিলি দ্বীপে। দ্বীপজুড়ে শপিংমল ও সুপারমার্কেট গুলোতে হা’মলা চালাচ্ছে স্থানীয়রা।

পরি’স্থিতি নিয়’ন্ত্রণের চেষ্টা করছে দেশটির পুলিশ বাহিনী। এদিকে করোনা ভাইরাসের প্রাদু’র্ভাবে ভেঙে পড়েছে ইতালির স্বাস্থ্য ব্যবস্থা। সর্বশেষ তথ্য অনুসারে, ইতালিতে করোনায় মৃ’ত্যুর সংখ্যা ১০ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। আর আক্রা’ন্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯২ হাজার ৪৭২ জনে। মহামারী ঠে’কাতে ১২ মার্চ থেকে লকডাউনে পুরো ইতালি।

তিন সপ্তাহের মাথায় গত বৃহস্পতিবার থেকে খা’রাপ হতে থাকে সিসিলি দ্বীপের পরি’স্থিতি। স্থানীয় সংবাদমাধ্যম লা রিপাবলিকা জানিয়েছে, এদিন একদল স্থানীয় জনতা পালেরমো এলাকার একটি সুপারমার্কেটে ঢুকে পড়ে। এরপর সেখানকার সব মালামাল নিয়ে বেরিয়ে যায় তারা। এ সময় তারা বলে, ”আমাদের কোনো টাকা নেই। কিন্তু আমরা ক্ষু’ধা’র্ত। আমাদের খেতে হবে।”

About struggle

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*