Home : প্রচ্ছদ : অনলাইন বাজার কোরবানীর গরু

অনলাইন বাজার কোরবানীর গরু

নিজস্ব প্রতিবেদক : করোনার প্রকোপ না কমলেও কোরবানির হাট বসবে। তবে পশুর হাটে গিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মানাটা অসম্ভব বিধায় অনলাইনেই হাট বসানোর চিন্তা করছে অনেকে। ই-কমার্স উদ্যোক্তারা বলছেন, দেশে অনলাইনে পশুর হাটের যাত্রা শুরু প্রায় এক দশক হলো। এর মধ্যে গত দু-তিন বছরে অনলাইনে পশুর হাটের জনপ্রিয়তা ছিল। তবে সার্বিক পরিস্থিতিতে চলতি বছরে অনলাইনে হাট আরও জমে উঠবে।

বর্তমানে ফেসবুকে পশু কেনাবেচার জন্য বেশ কিছু গ্রুপ রয়েছে। সেখানে অনেক উদ্যোক্তা এরই মধ্যে কোরবানির পশুর বিজ্ঞাপন দিচ্ছেন। অনেক অ্যাগ্রো ফার্মও বিভিন্ন অনলাইনে প্ল্যাটফরমে

তাদের গরুর বিজ্ঞাপন দিতে শুরু করেছে। কিছু কিছু প্রতিষ্ঠান ফেসবুকের বিভিন্ন গ্রুপ ও পেজের মাধ্যমে গরুর বুকিং নিচ্ছে। কোনো ধরনের হাটের হাসিল বা অতিরিক্ত দাম দেওয়া লাগে না, বিধায় অনলাইন থেকে ও বিভিন্ন অ্যাগ্রো ফার্ম থেকে সরাসরি গরু কেনাটাই নিরাপদ মনে করছেন অনেকে।বিক্রয় ডটকমের কো-ম্যানেজিং ডিরেক্টর ঈশিতা শারমিন বলেন, আমরা গত ছয় বছর ধরে অনলাইনে গরুর হাট আয়োজন করে আসছি। আমরা আমাদের সদস্যদের কিছু ডিসকাউন্ট অফার দিয়ে থাকি। এবার অ্যাগ্রো ফার্মগুলোকে আরও কম রেটে মেম্বারশিপ দিচ্ছি। কারণ করোনায় অনলাইনে বিক্রি বেশি হবে বলে প্রত্যাশা সবার।

প্রতিবছরই অনলাইনে কোরবানির পশু বিক্রি হয় দারাজ ডটকমে। তবে প্রতিষ্ঠানটির জনসংযোগ কর্মকর্তা ফয়েজ জানালেন, এ বছর এখন পর্যন্ত তারা এ নিয়ে কোনো পরিকল্পনা করেননি। তবে কার্যক্রম এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে অন্যতম প্রতিষ্ঠিত কোম্পানি বেঙ্গল মিট। তারা এখনো চূড়ান্ত কোনো রূপরেখা দাঁড় করাতে পারেনি। এ ছাড়া সাদিক অ্যাগ্রো, খামার ই অনলাইন হাটসহ বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান অনলাইনে পশু কেনাবেচা নিয়ে প্রস্তুতি নিচ্ছে। ওয়েল অ্যান্ড সিডের উদ্যোক্তা জানালেন, গরুর ওজন অনুযায়ী কেজিপ্রতি দামের ভিত্তিতে ‘ফিক্সড প্রাইসে’ যেমন গরু বিক্রি করবেন, তেমনি ক্রেতাদের গরু দেখিয়ে দরদাম করেও বিক্রি করবেন গরু।

বাংলাদেশ ডেইরি ফারমাস অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক শাহ ইমরান বলেন, এ বছর বেশ কয়েকটি কোম্পানি প্রফেশনালি ভার্চুয়াল গরুর হাট নিয়ে আসবে। এ ছাড়া শহরে যারা স্মার্টফোন ব্যবহার করেন, এমন খামারি বা অ্যাগ্রো ফার্মের স্বত্বাধিকারীরা তো এরই মধ্যে ফেসবুক বা বিভিন্ন প্ল্যাটফরমে বিজ্ঞাপন দিতে শুরু করেছেন। সে কারণে এবার অনলাইনে গরুর হাট বেশ জমে উঠবে বলেই মনে করছি।

About Moniruzzaman Monir

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*