শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ০৭:৫৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :

ঝালকাঠিতে যুবদলের নেতার বাড়ীতে সন্ত্রাসী হামলা!

Reporter Name / ১২৭ Time View
Update : শুক্রবার, ২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪, ৮:১১ অপরাহ্ন

যুবদলের সহ-সভাপতি ঝালকাঠী সদর উপজেলা অধিনে ১০ নং নতুল্লাবাদ ইউনিয়নের যুবদলের সহ-সভাপতির বাড়ীতে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলা ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় তার বাবাসহ একজন মারাত্মক আহত হয়েছে। শনিবার দুপুর আড়াইটার দিকে এ ঘটনা ঘটে। যার বিবরণে জানা যায়, ঝালাকাঠী সদর যুব দলের সহ-সভাপতি মোঃ শাহ-আলমের বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে। শনিবার দুপুরের দিকে তার বাড়িতে গিয়ে তাকে খুজঁতে থাকে দুর্বৃত্তরা। সন্ত্রাসীরা তাকে না পেয়ে তার বাবাকে যখম করে। এ সময় তার বাবা এগিয়ে আসলে তাদেরকে মারধর করে। আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

এলাকাবাসী বলেন সরকার দলীয় স্থানীয় নেতা-কর্মীরা যুবদলের সহ-সভাপতি মোঃ শাহ-আলমকে রাজনীতি থেকে দূরে সরে যেতে এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরকার বিরোধী কোন লেখালেখি করতে নিষেধ করেন। এই বিষয়ে বিগত সময়েও মোঃ শাহ-আলমকে হুমকি দিয়ে এসেছিল স্থানীয় ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতা-কর্মীরা। কিন্তু মোঃ শাহ-আলমকে তাদের কথা না শুনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরকারের গঠনমূলক সমালোচনা করে আসছিলেন। উক্ত বিষয়কে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগ, যুবলীগের নেতা-কর্মীরা ক্ষুদ্ধ হয়ে মোঃ শাহ-আলমকে এর বাড়ি ও তাদের মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানে হামলা চালায়। তবে এবারের হামলার সময় শাহ আলমকে লন্ডন থাকায় তাকে না পেয়ে পরিবারের সদস্যদের উপর হামলা চালায় সন্ত্রাসীরা। হামলায় মোঃ শাহ-আলমের পিতাসহ, ২৯ বছর বয়সী চাচাতো ভাই ও তাদের বাড়ির অনেকে আহত হয়। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীরা স্থানীয় থানায় মামলা করতে গেলে পুলিশ মামলা না নিয়ে টালবাহানা করে। জানা যায়,হামলাকারীরা সরকার দলীয় হওয়ায় পুলিশ মামলা নিতে অপরাগতা প্রকাশ করে। রাজনৈতিক প্রতিহিংসা ও ভিন্নমতের কারণে মিথ্যা মামলা ও সরকার দলীয় লোকদের দ্বারা মোঃ শাহ-আলমের বাড়িতে হামলা, তাকে ও তার বাড়ীর লোকজনকে ভয়-ভীতি দেখানো সহ নানাবিধ হয়রানি করার ঘটনা এর আগেও ঘটেছে। দেশে আওয়ামী বিরোধী রাজনৈতিক পরিস্থিতি ক্রমান্বয়ে প্রতিকূল হওয়ায় এক সময় গোপনে দেশত্যাগ করে তিনি লন্ডনে চলে যান।
পরিবারের অভিযোগ সরকার দলীয় বিভিন্ন ক্যাডার বাহিনী তাকে খুঁজে না পেয়ে তার পরিবারের লোকজনদের মারধর ও হয়রানি করছে। ইতিমধ্যে তার নামে একাধিক মামলা হয়েছে এবং বাড়ির মালামালের ব্যাপক ক্ষতিসাধন হয়েছে। লন্ডনে বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠনের সাথে সক্রিয়ভাবে জড়িত আছেন বলে জানা যায়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category